কলকাতা: আবার পুজো মণ্ডপে বাজবে পুজোর নতুন গান (Puja Particular Track)। সেই ফেলে আসা হেমন্ত- মান্না- শ্যামল- কিশোর যুগ পেরিয়ে অমিত-শানু-নচিকেতা-অঞ্জন-শান-বাবুল হয়ে এখন পুজোয় নতুন গান প্রকাশ পেলেও পুজো মণ্ডপে সে গান আর বাজতে শোনা যায় না। চারিদিকে থিমের পুজো, তাই থিম হিসেবেই সুরে, সুরে আবহ নির্মান করা হয়। নতুন বাংলা গান সেখানে অচল।

রেডিওতেও তেমন চল নেই নতুন বাংলা আধুনিক গান বাজানোর। তাই শিল্পী গান করেন নিজের গরজেই। শোনার তেমন সুযোগ নেই, মাধ্যম নেই। এবার ড্যাফোডিল ইনকর্পোরেট নিয়ে আসছে বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী মনোময় ভট্টাচার্য এবং ঝুমকি সেনের পুজোর নতুন গান যা আবার শোনা যাবে শহরের ২০টা বড় দুর্গা পুজোয়।

এবার পুজোর নতুন গান বাজবে বিভিন্ন পুজো মণ্ডপে যেমন নলিন সরকার সার্বজনীন, নবীন সংঘ, হাতিবাগান সার্বজনীন, নর্থ ত্রিধারা, যাদবপুর শ্যামাপল্লী এই রকম প্রায় কুড়িটি মণ্ডপে বাজবে এই নতুন গান। বাংলা গানের স্বর্ণযুগ না ফিরলেও এই উদ্যোগ স্মৃতিমেদুর করে তোলে বলা বাহুল্য। শিল্পী ঝুমকি সেন বললেন, ‘‘ খুব ভালো লাগছে আবার নতুন বাংলা আধুনিক গান পুজো মণ্ডপে বাজবে শুনে। থিমের পুজোর জেরে সব হারিয়ে যাচ্ছিল।’’

মনোময় ভট্টাচার্য (Manomay Bhattacharya) বললেন, ‘‘মাইকে দূর থেকে গান ভেসে আসতো। সত্যি সেই দিন গুলো খুব মিস করি। পাড়ায়,পাড়ায় পুজোর জলসা, বিজয়া সম্মিলনী। সব মিলিয়ে সেই দিন গুলো পুজোর আবহকে আরও জীবন্ত করে তোলে। ভালো লাগছে জেনে আবার মাইকে বাংলা নতুন আধুনিক গান শুনতে পাওয়া যাবে।’’

সঙ্গীত পরিচালক কল্যাণ সেন বরাট জানালেন, ‘‘ আমিও বাকিদের মতোই খবরটা পেয়ে বেশ খুশি। মানুষ নতুন বাংলা গান শুনুক এটাই একমাত্র কামনা। এই শিল্পকে বাঁচাতে গেলে আমাদেরই উদ্যোগী হতে হব।সে ক্ষেত্রে ড্যাফোডিলের রূদ্র সেনের এই পরিকল্পনা এবং উদ্যোগ সাধুবাদ প্রাপ্য।”

পুজোয় নতুন যে গান দুটো প্রকাশ পেল- ‘তুমি কিছু স্বপ্ন দেখো’ (ঝুমকী সেন ), ‘চঞ্চল হলো মন’ (মনোময় ভট্টাচার্য ও  ঝুমকী সেন )। দুটো গান লিখেছেন শুভ দাশগুপ্ত ও সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন কল্যাণ সেন বরাট ৷ গান দুটি ডিজিটালি মুক্তি পেল।

Arunima Dey



Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here