#মুম্বই: টানা পরপর দুদিন বলিউডের উঠতি অভিনেত্রী অনন্যা পাণ্ডেকে (Ananya Panday) জেরা করল নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)। আজ শুক্রবারও দীর্ঘ ৪ ঘণ্টা এনসিবি অফিসে জিজ্ঞাসাবাদ করা হল অনন্যাকে। আজও বাবা চাঙ্কি পাণ্ডের সঙ্গেই এনসিবি অফিসে পৌঁছন অনন্যা। সোমবার ফের অনন্যাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এনসিবি অফিসে আসতে বলা হয়েছে।

মাদককাণ্ডে জিজ্ঞাসাবাদের জন্যই অনন্যাকে তলব করা হচ্ছে। সূত্রের খবর, এই তদন্তে এনসিবিকে সহযোগিতা করছেন অভিনেত্রী। এরই মধ্যে শাহরুখ খানের দেহরক্ষী রবি সিংও উপস্থিত হন এনসিবি অফিসে। তিনি একটি খামে করে কিছু নথিপত্র জমা দিয়ে যান। কিন্তু সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে তিনি কোনও রকম বাক্যালাপে যাননি। মূলত শাহরুখ পুত্র আরিয়ান খানের (Aryan Khan) সঙ্গে অনন্যার (Ananya Panday) কিছু চ্যাট এনসিবির হাতে আসার পরেই বৃহস্পতিবার সকালে অভিনেত্রীর বাড়িতে পৌঁছন আধিকারিকরা। তার পরে তাঁকে এনসিবি অফিসে আসতে বলা হয় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য। অনন্যার ল্যাপটপ ও মোবাইল ফোনও বাজেয়াপ্ত করেছে এনসিবি।

আরিয়ান (Aryan Khan) ও অনন্যার (Ananya Panday) হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট থেকে বেরিয়েছে যে, এক জায়গায় আরিয়ান অনন্যাকে গাঁজা জোগাড় করার কথা বলছেন। উত্তরে অনন্যা বলেছেন যে, তিনি দেখছেন কী করা যায়। তবে এই চ্যাট নাকি মজা করে করা বলে জানিয়েছেন অনন্যা। মাদক সংক্রান্ত তিনি কিছুই জানেন না বলে দাবি করেছেন। যদিও এনসিবিও জানিয়েছে, এই চ্যাট ছাড়া আর কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি, যা প্রমাণ করতে পারে যে অনন্যা মাদকের সঙ্গে জড়িত।

আরও পড়ুন -শাহরুখ এক‌টি কারণের জন্যই চাঙ্কি পাণ্ডের কাছে চিরকৃতজ্ঞ থাকবেন

এনসিবির এক আধিকারিক বলেছেন, “এটা তদন্ত প্রক্রিয়ার মধ্যে পড়ে। এমন নয় যাঁকে তলব করা হচ্ছে, তিনিই অপরাধী।” প্রসঙ্গত, ২ অক্টোবর গোয়াগামী প্রমোদতরী থেকে গ্রেফতার করা হয় আরিয়ানকে (Aryan Khan)। ৮ অক্টোবর থেকে মুম্বইয়ের আর্থার রোড জেলে আছেন তিনি। একাধিক বার তাঁর জামিনের আবেদন খারিজ হয়েছে। আগামী ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত তাঁকে জেল হেফাজতেই থাকতে হবে আদালত জানিয়েছে।

আরও পড়ুন- ‘মানিকে মাগে হিতে’-র হিন্দি ভার্শনে কি নোরা ফাতেহির সঙ্গে জুটি বাঁধবেন সিদ্ধার্থ



Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here