মুম্বই: নাগা চৈতন্য সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের ঘোষণার পর থেকেই কারণ হিসেবে কার্যত অভিযোগের আঙুল উঠতে শুরু করেণে অভিনেত্রী সামান্থা রথ প্রভুর (Samantha) দিকে। গুজব রটেছে যে, অভিনেত্রীর অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে। এমনকি এটাও বলা হচ্ছে যে, অভিনেত্রী সামান্থা সন্তান চাইতেন না। এবং গর্ভপাতও করিয়েছেন। তাই বিবাহ বিচ্ছেদের পথে হেঁটেছেন। এবার সন্তান না চাওয়ার গুজব প্রসঙ্গে মুখ খুললেন ‘শকুন্তলম’ ছবির প্রযোজক নীলিমা গুণা।

আরও পড়ুন – অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্কের কারণেই বিবাহ বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন? মুখ খুললেন সামান্থা

‘ফ্যামিলি ম্যান টু’ মুক্তি পাওয়ার পর থেকে খ্যাতির শীর্ষে পৌঁছে গিয়েছেন দক্ষিণের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সামান্থা রথ প্রভু। এরপরই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল যে, তাঁর সঙ্গে অভিনেতা নাগা চৈতন্য বৈবাহিক সম্পর্ক সঠিক যাচ্ছে না। গুজবকে সত্যি প্রমাণ করে দুই অভিনেতাই বিবাহ বিচ্ছেদের ঘোষণা করেন। আর তারপর থেকেই একের পর এক অভিযোগের আঙুল উঠেছে অভিনেত্রীর দিকে। এই প্রসঙ্গে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ‘শকুন্তলম’ ছবির প্রযোজক নীলিমা গুণা বলেন, ‘আমার বাবা পরিচালক গুণশেখর গাড়ু শকুন্তলম ছবির জন্য সামান্থাকে প্রস্তাব দেন গত বছর। এই ছবির গল্প ওর খুবই পছন্দ হয়েছিল। ও এই ছবিটি করতে উত্তেজিতও ছিল। কিন্তু ও জানিয়েছিল যে, জুলাই কিংবা অগাস্টের মধ্যে শ্যুটিং শেষ করে ফেলতে চায়। কারণ নাগা চৈতন্যর সঙ্গে সন্তানের পরিকল্পনা করেছে ও। ও সন্তান নিতে চেয়েছিল সেই সময়ে।’

আরও পড়ুন – Aryan Khan : শাহরুখ পুত্রকে দেওয়া হচ্ছে জেল বন্দিদের জন্য নির্দিষ্ট সাধারণ খাবার

‘শকুন্তলম’ ছবির জন্য় হ্যাঁ বলে দিয়েছিলেন সামান্থা। কিন্তু চিন্তায় পড়ে গিয়েছিলেন শ্যুটিং শেষ হওয়ার সময় নিয়ে। নীলিমা গুণা আরও বলছেন, ‘ও মা হতে চেয়েছিল। আমাদের বলেছিল, ওটাই ওর সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ দিক এখন। শকুন্তলমের মতো ছবির শ্যুটিংয়ে সময় লাগে। তাছাড়া এই ছবির জন্য খুব খুশি হয়ে হ্যাঁ বলেছিল সামান্থা। আমরা ওকে নিশ্চিত করেছিলাম যে, প্রি প্রোডাকশনের কাজ অত্যধিক থাকায় আমরা শ্যুটিংয়ের সময় কমিয়ে ফেলব। তাই ও খুশি হয়ে কাজ শুরু করেছিল।’

তিনি আরও বলছেন, ‘ও পরিবার তৈরি করতে চেয়েছিল। কাজ থেকে কিছুটা বিরতি নিয়ে সন্তানের দেখভাল করতে চাইত।’



Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here