মুম্বই: আজ জাতীয় ক্যানসার সচেতনতা দিবস (Nationwide Most cancers Awarness Day)। সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি লম্বা পোস্ট করলেন বলিউডের হার্টথ্রব মাধুরী দীক্ষিত (Madhuri Dixit)। কিন্তু কী রইল অভিনেত্রীর পোস্টে? ক্যানসার নিয়ে সচেতনতা? না। নিজের ছেলের একটি কাজের কথা ভাগ করে নিলেন গর্বিত মা মাধুরী। 

ক্যানসার আক্রান্তদের সারিয়ে তোলার জন্য কেমোথেরাপি করা হয়। এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হিসেবে চুল উঠে যায় আক্রান্তদের। ক্যানসার রোগীদের জন্য চুল দান করার ব্যবস্থা রয়েছে। তবে ঝরে পড়া চুল নয়, লম্বা চুল কেটে তারপর তা সংরক্ষণ করে পাঠিয়ে দিতে হয় নির্দিষ্ট জায়গায়। ক্যানসার আক্রান্তদের জন্য প্রাণ কেঁদেছিল মাধুরী পুত্রেরও। তাই ২ বছর ধরে চুল কাটেননি তিনি। একটি নির্দিষ্ট দৈর্ঘ্য না হলে চুল দান করা যায় না। সেই দৈর্ঘ্য পর্যন্ত চুল বাড়ান তিনি। এরপর সেই চুল কেটে তুলে দেন নির্দিষ্ট সংস্থার হাতে। 

সোশ্যাল মিডিয়ায় মাধুরী লিখছেন, ‘সমস্ত হিরোটা টুপি পরে না। কিন্তু আমার হিরো পরে। আজ জাতীয় ক্যানসার দিবস। আর আজকের দিনেই আমি সবার সঙ্গে একটা বিশেষ কথা ভাগ করে নিতে চাই। বছর ২ আগে আমার ছেলে রেয়ানের ক্যানসার আক্রান্তদের দেখে কষ্ট হয়েছিল, খারাপ লেগেছিল। কেমোর ফলে প্রায় সব ক্যানসার আক্রান্তদেরই চুল ক্ষতিগ্রস্থ হয়। তাঁদের দেখে আমার ছেলে সিদ্ধান্ত নেয় চুল বাড়ানোর। বাবা-মা হিসেবে আমরা আমাদের ছেলের এই সিদ্ধান্ত শুনে রোমাঞ্চিত হয়েছিলাম। খুশিও। ২ বছর ধরে রেয়ান চুল কাটেনি। চুল দান করার একটা নিয়ম রয়েছে। অন্তত একটি বিশেষ দৈর্ঘ্য অবধি না পৌঁছলে চুল দান করা যায় না। সেই মতোই রেয়ান চুল বাড়ায়। এবং আজ সেই চূড়ান্ত দিন। মা-বাবা হিসেবে আমাদের গর্ববোধ হচ্ছে।’

সোশ্যাল মিডিয়ায় মাধুরীর এই পোস্টে সাধুবাদ জানান বলিউডের একাধিক তারকা। শিল্পা শেট্টি লেখেন, ‘খুব সুন্দর ভাবনা। ওকে অনেক আশীর্বাদ।’ কমেন্টবক্সে হার্ট ইমোজি দেন দিয়া মির্জা। জেনেলিয়া ডিসুজা লেখেন, ‘অবিশ্বাস্য। তুমি ভগবানের সন্তান রেয়ান।‘



Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here