মুম্বই: ‘এই মাসে আমি পঞ্জাবে কোনও অনুষ্ঠানে যাচ্ছি না। দয়া করে কোনও ভুয়ো খবরে বিশ্বাস করবেন না। আগামী কয়েকদিন আমি মুম্বইতে শ্যুটিংয়ে ব্যস্ত থাকব।’ সোশ্যাল মিডিয়ায় কয়েকটা লাইনেই স্পষ্ট বার্তা। কথাগুলি লিখছেন সোনু সুদ (Sonu Sood)। তবে কেন হঠাৎ পঞ্জাবের অনুষ্ঠানের কথা তুলে আনলেন সোনু? এর পিছনে কী রয়েছে তাঁর বোনের রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার সম্পর্ক?

বলিউড অভিনেতা সোনু সুদ (Sonu Sood) আজ ঘোষণা করলেন যে তাঁর বোন, মালবিকা সুদ (Malvika Sood) পঞ্জাব নির্বাচনে লড়বেন। এই নির্বাচন হওয়ার কথা আগামী বছরের শুরুতে। তবে কোন দলের হয়ে লড়তে চলেছেন মালবিকা, সেই ব্যাপারে কিছু জানাননি সোনু। করোনা অতিমারীর তাণ্ডবে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন সোনু। সেই থেকে গরিবের ‘মসিহা’ হয়ে উঠেছেন তিনি। এদিন চণ্ডীগড় থেকে ১৭০ কিমি দূরে মোগায় এক সাংবাদিক বৈঠকে বোন মালবিকার রাজনীতিতে যোগদানের কথা জানান তিনি। সম্প্রতি পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিংহ চন্নীর সঙ্গে দেখা করেন সোনু সুদ।

কিছুদিন আগেই গুজব ছড়ায় যে রাজনীতিতে যোগদান করছেন সোনু সুদ। গুজব রটেছিল তিনি ২০২২ সালের বিএমসি ভোটে (BMC elections 2022) লড়বেন। খবর রটতেই সোশাল মিডিয়ায় ট্রেন্ড করতে শুরু করেন গরিবের ‘মসিহা’ সোনু সুদ। ‘দাবাং’ অভিনেতা যদিও তাঁর রাজনীতিতে যোগ দেওয়া সংক্রান্ত সমস্ত গুজব খারিজ করে দেন। 

তাঁর রাজনীতিতে যোগ দেওয়া সংক্রান্ত একটি ট্যুইটের উত্তর দিয়ে জানিয়েছিলেন, তিনি ভোটে লড়ছেন না। তিনি লেখেন, ‘নট ট্রু, আই অ্যাম হ্যাপি অ্যাজ এ কমন ম্যান।’ অর্থাৎ, যা রটছে তা সত্য নয়। তিনি সাধারণ নাগরিক হিসেবেই ভাল আছেন বলে জানান সোনু। 

সোনুর আজকের পোস্টেও কোনওরকম রাজনৈতিক ইঙ্গিত ছিল না, তবে সোনু কোন অনুষ্ঠানের কথা বলছেন তা স্পষ্ট নয়। 





Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here