#কলকাতা: বিজেপি ছাড়লেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় (Srabanti Chtterjee Left BJP)। বৃহস্পতিবার নিজেই ট্যুইট করে জানালেন সেই কথা। বৃহস্পতিবার তিনি ট্যুইটারে লেখেন, ‘‌বিজেপির সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করছি। যে দলের হয়ে আমি গত বিধানসভা ভোটে লড়েছি। কারণ, বাংলার স্বার্থকে আরও এগিয়ে নেওয়ার জন্য তাদের উদ্যোগ এবং আন্তরিকতার অভাব।’‌

উল্লেখ্য, গত সোমবার মুখ্যমন্ত্রীর বিজয় সমাবেশে রূপাঞ্জনা মিত্রের মতোই আমন্ত্রিত ছিলেন শ্রাবন্তী (Srabanti Chtterjee Left BJP)। কিন্তু তিনি সেখানে উপস্থিত হননি। তখন তাঁর অনুপস্থিতি নিয়ে জল্পনা ছড়িয়েছিল যে, তিনি বিজেপি ছাড়ার কথা ঘোষণা না করে মুখ্যমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে আসতে চান না। যদিও এ বিষয়ে শ্রাবন্তী নিজে কোনও মন্তব্য করেননি সেই সময়।

একুশের বিধানসভা নির্বাচনের ঠিক আগে, ১ মার্চ, বিজেপি-তে যোগ দেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় (Srabanti Chtterjee Left BJP)। বেহালা পশ্চিম কেন্দ্রে তাঁকে প্রার্থী করে বিজেপি। কিন্তু তৃণমূলের পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে হেরে যান তিনি। এখানেই শেষ নয়। হারের পরও ঘরে বাইরে কটাক্ষের শিকার হন নায়িকা। কখনও বিরোধী দল, কখনও বা নিজের দলের কর্মীরা তাঁকে ঘিরে নানা মন্তব্য করেন বলে অভিযোগ।

ভোটের ফল প্রকাশ পাওয়ার দু’দিন পরে বিজেপি-র প্রবীণ নেতা তথাগত রায় ফের তোপ দাগেন। শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় (Srabanti Chtterjee Left BJP), তনুশ্রী চক্রবর্তী এবং পায়েল সরকারকে কেন টিকিট দেওয়া হয়েছে, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। কিন্তু সেই প্রশ্নের মধ্যে ‘অপমান’ করার চেষ্টাও চোখে পড়ে অনেকের। দোলের দিন একটি অনুষ্ঠানে গিয়ে তৃণমূল নেতা মদন মিত্রের সঙ্গে ছবি তোলা নিয়েও একাধিকবার কটূক্তি করেন বিজেপির প্রবীণ নেতা তথাগত রায়। ট্যুইটারে তিনি লিখেছিলেন, ‘নগরীর নটীরা নির্বাচনের টাকা নিয়ে কেলি করে বেড়িয়েছেন আর মদন মিত্রর সঙ্গে নৌকাবিলাসে গিয়ে সেলফি তুলেছেন (এবং হেরে ভূত হয়েছেন) তাঁদেরকে টিকিট দিয়েছিল কে?’





Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here